ডিটিপি বা ডেস্কটপ পাবলিশিং কি? ডেস্কটপ পাবলিশিং এর ধাপসমূহ।

ডিটিপি বা ডেস্কটপ পাবলিশিং হলো একটি সফটওয়্যার যা উপকারীদের প্রয়োজন অনুযায়ী পেইজ লেআউট বা কাগজে প্রকাশ করে। এই সফটওয়্যারটি আগে ওয়ার্ডপ্রেস এবং সাধারণত ওয়ার্ড প্রসেসরের জন্য ব্যবহার করা হতো। তবে আজকাল এটি উন্নয়ন পেয়ে অনেকেই এটি ব্যবহার করে ব্যবসা করছেন। একজন ব্যবহারকারীর জন্য এই সফটওয়্যারটি ব্যাবহার করা খুব সহজ।

প্রথমে, ইচ্ছামত সিস্টেমে একটি নতুন ডকুমেন্ট খোলতে হবে। তারপর উপযোগী টেমপ্লেট সিলেক্ট করে প্রথম পাতা পর্যন্ত এর পরবর্তী ক্ষেত্রে নিজের মত নথি লেখা যাবে। এরপর আলাদা সেটিং নির্বাচন করে ডকুমেন্ট প্রকাশ করা যাবে। ডেস্কটপ পাবলিশিং এর এই ধাপসমূহ জানানো হল আশা করছি এটি চলমান ব্যবহারে আপনাদের সাহায্য করবে।

ডিটিপি বা ডেস্কটপ পাবলিশিং কি?

ডিটিপি বা ডেস্কটপ পাবলিশিং তথ্য প্রকোলগুলি ব্যবহার করে ডেস্কটপ কম্পিউটার বা সিস্টেমে ডকুমেন্ট, পত্র, চমক ইত্যাদি তৈরি ও প্রকাশ করার পদ্ধতি। এনবিআই, পবিটিতো ইত্যাদি সফটওয়্যারগুলি ডিটিপি ব্যবহার করে ব্যবহৃত হয়। এই প্রক্রিয়াটি সহজ এবং সুবিধাজনক যার ফলে ব্যবহারকারীরা তাদের উপস্থিতি না থাকলেও ব্যাক্তিগত ডকুমেন্ট তৈরি এবং টাইপ করতে পারেন। ডিটিপি ব্যবহার করে ব্যবহারকারীরা চমক বা পত্র লেখার জন্য বিভিন্ন টুলসমূহ ব্যবহার করতে পারেন যেমন ইমেজ শেপ, টেক্সট বক্স ইত্যাদি।

এছাড়া আরও অনেক ফিচার রয়েছে যেমন শব্দাংশ সংগ্রহ এবং লেখার সর্বনিম্ন সুষম নির্দেশনা।

ডিটিপি পাবলিশিং এর সাথে ডেস্কটপ পাবলিশিং এর পার্থক্য কি?

ডিটিপি পাবলিশিং এবং ডেস্কটপ পাবলিশিং হল পাবলিশিং সফটওয়্যার দুইটি। এদের মধ্যে পার্থক্য হল, ডিটিপি পাবলিশিং এ সম্পূর্ণ পাবলিশিং প্রক্রিয়াটি একটি ডিজিটাল প্রসেস হয়ে থাকে। অর্থাৎ, প্রক্রিয়াটি Adobe InDesign বা QuarkXPress সম্পর্কিত সফটওয়্যার ব্যবহার করে হয়। এর মাধ্যমে বই, ম্যাগাজিন, সংবাদপত্র, পোস্টার, ব্রোশার এবং অন্যান্য বিভিন্ন প্রকারের ডকুমেন্ট তৈরি নেওয়া হয়।

আমরা পাবলিশিং সফটওয়্যার ব্যবহার করে কিছুটা পরিচিত থাকি, যেমন MS Word, InDesign এবং Publisher। ডেস্কটপ পাবলিশিং হল পাবলিশিং প্রক্রিয়াটি আমরা কম্পিউটারের মধ্যেই করি। এর মধ্যে আমরা উপাদানগুলি (ফন্ট, ইমেজ, টেক্সট, কোড, ইত্যাদি) পেশ করে পরিবর্তন দিই এবং একটি ডকুমেন্ট তৈরি করি। সফটওয়্যারগুলি দুটির পার্থক্য হল ডিটিপি পাবলিশিং সফটওয়্যারগুলি ডিজিটাল এবং মূলত দুইটি প্রকারের, আর ডেস্কটপ পাবলিশিং সফটওয়্যার হল কম্পিউটারের মধ্যে সম্পাদিত, প্রসেস এবং প্রিন্ট করা যায়।

ডেস্কটপ পাবলিশিংে কোন সফটওয়্যার ব্যবহার করা হয়?

ডেস্কটপ পাবলিশিং হলো এমন একটি প্রক্রিয়া যা কাজের প্রসঙ্গে মন্তব্য, প্রস্তুতিপত্র এবং অন্যান্য ধরনের প্রকাশনা সম্পর্কিত কাজের জন্য কম্পিউটার ব্যবহৃত হয়। ডেস্কটপ পাবলিশিং সাধারণত গ্রাফিক্স ডিজাইন এবং টাইপসেটিং এর মাধ্যমে একটি প্রস্তুতিপত্র এবং অন্যান্য ধরনের মাল্টিমিডিয়া কন্টেন্ট তৈরি করার মাধ্যমে কাজ করে। ডেস্কটপ পাবলিশিং শুরু করার জন্য আপনি কিছু সফটওয়্যার ব্যবহার করতে পারেন, যেমন ইনডিজাইন এবং কুরেল ড্র, এগুলি গ্রাফিক্স ডিজাইন এবং ডেস্কটপ পাবলিশিং এ সবচেয়ে দক্ষ সফটওয়্যার। আরও সফটওয়্যার রয়েছে যেমন ফটোশপ এবং আইনডি এবং বিভিন্ন অনলাইন সেবা যেমন ক্লাউড প্রিন্ট যা ডেস্কটপ পাবলিশিং উদ্যোগে সাহায্য করতে পারে।

কোন কোন কাজের জন্য ডেস্কটপ পাবলিশিং ব্যবহৃত হয়?

ডেস্কটপ পাবলিশিং হল একটি কম্পিউটার সফটওয়্যার যা সম্পাদনা, ফরমেটিং এবং প্রকাশনা প্রসেসের জন্য ব্যবহৃত হয়। এই সফটওয়্যার দ্বারা বিভিন্ন বিষয়বস্তু যেমন বই, পত্রিকা, বিজ্ঞাপন ইত্যাদি তৈরি করা যায়। সাধারণত ডেস্কটপ পাবলিশিং ব্যবহার করা হয় গ্রাফিক্স ডিজাইনিং, প্রেস প্রক্রিয়ার কাজে এবং ডিজিটাল মিডিয়া প্রকাশ সম্পর্কিত কাজের জন্য। এছাড়াও এই সফটওয়্যারে বিভিন্ন মানচিত্র, বানান এবং টেক্সট পোস্টার তৈরি করা যায়।

আপনি যদি এই সফটওয়্যারে অধিক দক্ষ হন তবে আপনি এই সফটওয়্যার দিয়ে প্রকাশনা জগতে নিজের ক্ষেত্রে একটি অবদান রাখতে পারেন।

See also  পঞ্চম প্রজন্মের কম্পিউটারের বৈশিষ্ট্য কি কি?

ছবি এডিটিং এর জন্য ডেস্কটপ পাবলিশিং সবচেয়ে ভালো।

ডিটিপি বা ডেস্কটপ পাবলিশিং এমন প্রোগ্রাম বা সফটওয়্যার যেটি মূলতঃ টেক্সট এবং ইমেজ এডিটিংকে সহজ ও সুবিধাজনক করে তোলে। এটি মূলতঃ অফিস কাজ, প্রেস, প্রকাশনা কাজ এবং কোন ধরনের ডিজাইন এ ব্যবহৃত হয়। সাধারণত এই ধরনের কাজ গুলো শব্দ ও চিত্রের যৌথ ইউজ কে নিয়ে অন্যতম করে থাকে। আমাদের এই ডিটিপি সফটওয়্যার গুলোতে আমরা ছবি এডিটিং, লেখাপড়া এবং কাজ সম্পাদন করতে পারি খুব সহজে এবং নিরাপদে।

ছবি এডিটিং বা ইমেজ এডিটিং এর জন্য ডেস্কটপ পাবলিশিং এ আপনি আপনার ছবি এবং লেখার কোন পরিবর্তন না করে সহজেই এডিট করে নিজের পছন্দ মতো ডিজাইন করতে পারেন। তাই এই ধরণের কাজ এর জন্য ডেস্কটপ পাবলিশিং সবচেয়ে ভালো এবং সুবিধাজনক।

ডেস্কটপ পাবলিশিং এর ধাপসমূহ

ডেস্কটপ পাবলিশিং হল এমন একটি প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে আমরা ডকুমেন্ট সাজানোর জন্য কম্পিউটার ব্যবহার করি। এটি আমাদেরকে শব্দ, ছবি এবং অন্যান্য উপকরণগুলি সম্পাদন এবং লেআউট করার সুবিধা দেয়। একটি আদর্শ ডেস্কটপ পাবলিশিং প্রক্রিয়া নিশ্চিত করে যে আপনার উপকরণগুলি স্বচ্ছতার সাথে সাজানো হয় এবং আপনি সামগ্রীটির উচ্চারণগুলি মজুত করতে পারেন। এই প্রক্রিয়াটি মূলত চারটি ধাপ অনুসরণ করে – উপকরণসমূহ সম্পাদনা করা, উচ্চারণ পরিবর্তন করা, আকা ফরম্যাটিং এবং প্রিন্ট করা।

উপরের চারটি ধাপ নির্দিষ্ট করা হয় একটি সমগ্র প্রক্রিয়াকে সহজ এবং পরিচিত করার জন্য। আরও অনেক সহজ ডেস্কটপ পাবলিশিং সফটওয়্যার আছে যা প্ল্যাটফর্ম বিভিন্ন সমর্থিত করে এবং যা আমাদের প্রক্রিয়াটি আরও সহজ করে।

পাবলিশিং সফটওয়্যার ইনস্টল করা

ডেস্কটপ পাবলিশিং এর ধাপসমূহ একটি সংশ্লিষ্ট বিষয়। এটি সাধারণত প্রিন্ট মিডিয়া বা ডিজিটাল প্রকাশনার জন্য ব্যবহার করা হয়। প্রথমেই আপনার কম্পিউটারে একটি পাবলিশিং সফটওয়্যার ইনস্টল করতে হবে। সফটওয়্যার ইনস্টল করার জন্য আপনি ইন্সটলার ফাইলটি ডাউনলোড করে এটি পরিচালিত করতে পারেন।

এদের মধ্যে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে ব্যবহারযোগ্য সফটওয়্যারের সন্ধান করা যাবে, যা আপনার ব্যবহারকারী ফ্রেন্ডলি এবং সহজভাবে ব্যবহার করা যায়। সফটওয়্যার ইনস্টল করার পরে, আপনি এটি লঞ্চ করতে পারেন এবং ডিজাইন করতে শুরু করতে পারেন! সহজেই পাবলিশিং কাজ শুরু করতে পারবেন।

ডকুমেন্ট তৈরি করা

ডেস্কটপ পাবলিশিং নির্দেশিকা অনুসরণ করে ডকুমেন্ট তৈরি করার প্রথম ধাপ হল ডকুমেন্ট টেক্সট এডিটর খুলা। সেখানে নতুন ডকুমেন্ট বা ফাইল খুলে নিজের প্রয়োজনীয় তথ্য লিখতে হবে। এডিটরে লেখার জন্য কিছু টুল আছে যেমন ফন্ট সেটিং, মানচিত্র সেটিং, লিস্ট তৈরি করার সুবিধা এবং এক্সেল নামক একটি অতিরিক্ত টুল যা ডেটা টেবিল তৈরি করার সুবিধা দেয়। লেখার জন্য ব্যবহৃত ফন্ট সাধারণত সামনে থাকা টেক্সট রূপান্তর করে থাকে।

ফ্যাক্ট হল লেখার আয়তন এবং কম্পিউটারের স্কীন সাইজ একেকটা হতে পারে। এবং কোনো টেক্সট বা ফাইল সেভ করে রাখা জরুরি যাতে পরবর্তীতে ঐ ফাইলটি খুলে নিজের প্রয়োজনীয় তথ্য যুক্ত করা যায়।

ছবি এডিট করা

ডেস্কটপ পাবলিশিং একটি অসামান্য প্রযুক্তি যা আপনাকে অনেক সহজে বিভিন্ন ধরনের সংবাদ প্রকাশ করতে সাহায্য করে। আপনি একটি প্রফেশনাল সম্পাদক হিসেবে স্বচ্ছতার সাথে মাস্টার করতে পারেন ছবি এডিট করা। এটি একটি মনোযোগ চলমান কাজ যা প্রথম দিকে কম্পিউটার সম্পর্কে কিছু জানা প্রয়োজন করে এবং সেই পরে ছবি এডিটিং সম্পর্কে জ্ঞান ফেলা। প্রথমে, আপনি একটি প্রোগ্রাম দরকার যা বিভিন্ন ছবিকে সম্পাদন করার জন্য ব্যবহার করা যাবে।

See also  মিডরেঞ্জ সিস্টেম (Midrange System) কি? মিডরেঞ্জ সিস্টেমের সুবিধা, অসুবিধা।

ছবি এডিটিং করার জন্য আপনার কিছু সাধারণ ধাপ হলো – স্ক্রীনশট টেকে যেতে হবে, তারপর আপনি প্রায়শই কিছু ছবি মুছে ফেলতে হবেন। পরবর্তীতে ইমেজগুলি রেটাচ করা যায় যার ফলে ছবিগুলির কম ব্যবহার করে পূর্ণ অরিজিনাল ছবি নির্মাণ করা যায়। ছবি এগুলি ব্যবহার করে বিভিন্ন ধরনের টেক্সট লেআউট তৈরি করা যায়। সঠিক ধাপগুলি অনুসরণ করে কম্পিউটারে কাজ করার আগে আপনাকে ছবি এডিটিংর সেই সাধারণ পরিচিতিগুলি সম্পর্কে কিছুটা জানা উচিৎ।

পরিবেশটি স্বচ্ছ রাখার জন্য আপনার ব্যাবহার করা সফটওয়্যারের বিভিন্ন ক্ষেত্রে কম শব্দে দেখানো হয়েছে কিভাবে কাজ করবেন। এছাড়াও, ছবি এডিটিং করতে সময় পরিচয়টি ধারণ করতে পারেন যা সঙ্গে সম্পর্কিত আরও টিপস দেয়। সুতরাং, ছবি এডিটিং একটি অসামান্য কাজ যা আপনাকে সম্পূর্ণ স্বচ্ছতার সাথে একটি প্রফেশনাল সম্পাদক হিসেবে করতে হবে। আপনি প্রথম দিকে কি সম্পর্কে কনসেপ্টটি কাজ করছেন তা জানা উচিৎ।

তারপর আপনি একটি প্রোগ্রাম ব্যবহার করে সম্পাদনা করতে পারেন। নির্দিষ্ট ধাপগুলি অনুসরণ করলে আপনি অর্জন করবেন সাক্ষ্যাতম্বক সুসংগঠিত একটি ভিডিও বা ছবি পাবলিশিং। একটি প্রফেশনাল সম্পাদক হিসেবে আপনি সম্পূর্ণ স্বচ্ছতার সাথে কাজ করতে হবেন। এর ফলে, আপনি ব্যাবহারকারীদের একটি ভাল অভিজ্ঞতা উপহার করবেন যা দ্রুত এবং সহজ হবে তাদের জন্য বিভিন্ন ধরনের সংবাদ প্রকাশ করতে।

লেআউট তৈরি করা

ডেস্কটপ পাবলিশিং এর মধ্যে লেআউট তৈরি করা একটি গুরুত্বপূর্ণ ধাপ। লেআউট হলো একটি ভিজ্যুয়াল ডিজাইন যা একটি ডকুমেন্ট বা প্রকল্পের জন্য আঁকা হয়। পাবলিশিং সফটওয়্যারগুলির মাধ্যমে এই লেআউট অদম্য গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠে যায়। লেআউট টুলস ব্যবহার করে আমরা ভাইসরয়েন্ড ডেস্কটপ পাবলিশিং প্রকল্পের একটি উদাহরণ দেখতে পারি।

লেআউট টুলস প্যানেলে আপনি একটি বড় প্রশাসনিক অংশকে স্ক্রল এবং নেভিগেট করতে পারেন। এটি কার্যকর একটি উপাদান যা আপনার সম্পাদকীয় কাজের জন্য সম্পূর্ণ সহায়তা করে। লেআউট তৈরি করতে সম্পর্কে অনেক ধরনের টুলস রয়েছে যেগুলি নিয়ে কাজ করা যায়। এক্ষেত্রে আপনি আপনার প্রকল্পের অনুযায়ী শেষ লেআউটটি নির্মাণ করতে পারেন।

মাল্টিমিডিয়া এড করা

ডেস্কটপ পাবলিশিং এর ধাপসমূহের একটি মাঝেমধ্যে দলিল হল মাল্টিমিডিয়া এড করা। এটি প্রকৃতপক্ষে একটি সম্পূর্ণ নতুন টেকনিক, এবং কাজের স্কোপ সীমাহীন। মাল্টিমিডিয়া এড করার মাধ্যমে আপনি পাঠকদের বিনামূল্যে মূল্যবান অভিজ্ঞতা সরবরাহ করতে পারেন। এটি শব্দ, চিত্র, ভিডিও, অডিও এবং অনুষ্ঠানের মতো বিভিন্ন উপাদানগুলি সম্পূর্ণ মিশে দিতে পারে।

মাল্টিমিডিয়া এড করার জন্য আপনি আমাদেরকে যে কোনও সম্পাদক এর মতো পাবলিশিং সফটওয়্যার ব্যবহার করতে পারেন। এটি আপনাকে যথাযথ সম্পাদনার জন্য উপযোগী টুলস এবং স্টাইল প্রয়োগ করার সুবিধা দেয়। একবার আপনি মাল্টিমিডিয়া এড করার উপকারিতা চিন্তা করবেন, আপনি একটি দমদার এবং একটি আকর্ষণীয় পাবলিকেশন পাবেন।

প্রকাশিত করা

একটি ডেস্কটপ পাবলিশিং সফটওয়্যার দিয়ে উচ্চমানের প্রকাশনা কাজ সহজই সম্ভব। সাধারণত, এই সফটওয়্যারগুলি নথি, পোস্টার, প্রস্তুত বিজ্ঞাপন এবং পত্রিকা প্রকাশনা সহ পরিচালিত প্রচেষ্টা করে। হালকা প্রযুক্তিগুলির সাহায্যে আপনি আপনার ডকুমেন্টগুলি ব্যবহারকারী মনোযোগ কেন্দ্রিত করে সুন্দর লেআউটে প্রকাশ করতে পারেন। প্রথমেই, আপনাকে তথ্যগুলি একত্রিত করতে হবে এবং একটি বিভাজন পরিকল্পনা করতে হবে।

তারপরে, আপনি সহজেই বিভিন্ন সম্পাদকীয় সর্টস ব্যবহার করে সুন্দর লেআউট তৈরি করতে পারেন। তারপরে, আপনি আপনার প্রকাশনা একটি স্বচ্ছ টেক্সট ফাইলে রিসাইজ করে রক্ষা করতে পারেন এবং এরপর আপনি আপনার পছন্দমত ধরণে প্রকাশনা করতে পারেন। সাধারণত, এই প্রক্রিয়াটি খুব সহজ এবং আপনাকে একটি সুন্দর প্রকাশনা সাজিয়ে দেয়।

Leave a Comment