নেটওয়ার্কিং ডিভাইস কাকে বলে?

নেটওয়ার্কিং ডিভাইস হল এমন সফটওয়্যার এবং হার্ডওয়্যার, যা নেটওয়ার্কের সংযোগ বিন্যাস করতে ব্যবহৃত হয়। ইথারনেট কেবল, রাউটার, সুইচ এবং হাব প্রধানতঃ নেটওয়ার্কিং ডিভাইসগুলি হিসাবে ব্যবহৃত হয়। রাউটার সংযোগ ও সংস্করণের জন্য ব্যবহৃত হয়। সুইচ নেটওয়ার্ক পরিচালনা এবং ব্যবহার করার জন্য ব্যবহৃত হয়।

হাব হল মূলত ডাটা ফ্রেমগুলি একটি নেটওয়ার্ক পরিষেবার সমস্ত তথ্যকে প্রেরণ করতে ব্যবহৃত হয়। নেটওয়ার্কিং ডিভাইসগুলি নেটওয়ার্ক পরিচালনার জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ স্বত্ব হিসাবে বিবেচিত হয়। সঠিকভাবে প্রতিষ্ঠিত নেটওয়ার্ক পরিচালনা করতে এই ডিভাইসগুলি খুবই গুরুত্বপূর্ণ হয়।

নেটওয়ার্কিং ডিভাইস কি?

নেটওয়ার্কিং ডিভাইস হল নেটওয়ার্ক কাজ করার জন্য উপকরণ বা যন্ত্রপাতি যেখানে একটি নেটওয়ার্ক থেকে অন্য নেটওয়ার্কে তথা কম্পিউটার এবং অন্য সঞ্চালনযোগ্য উপকরণের মধ্যে ডেটা পাঠানো হয়। এই উপকরণগুলি মূলত কম্পিউটার নেটওয়ার্কের তফা দিচ্ছে মানে একটি কম্পিউটারের মধ্যে থেকে আরেকটি কম্পিউটারে যেকোন ধরণের ডেটা পাঠানো যায়। এই মাধ্যমে নেটওয়ার্ক সারিগুলি গঠন করা হয় যা কম্পিউটার এবং ডিভাইস একসাথেই কাজ করতে পারে। উদাহরণস্বরুপ, রাউটার এবং সুইচ হলো দুটি প্রধান ডিভাইস যা একটি নেটওয়ার্কের সারিগুলি বিন্যাস করে তুলে ধরে।

নেটওয়ার্কিং ডিভাইস এর ব্যবহার

নেটওয়ার্কিং ডিভাইস হল সফটওয়্যার এবং হার্ডওয়্যার এর সমন্বয়ে তৈরি হওয়া একটি উপকরণ যা নেটওয়ার্কের সংযোগ নিয়ে কাজ করে। নেটওয়ার্কিং ডিভাইস এর মধ্যে হল রাউটার, সুইচ, হাব, গেটওয়ে, ব্রিজ, ফাইরওয়াল ইত্যাদি। এসব ডিভাইস একসাথে কাজে লাগিয়ে নেটওয়ার্কে প্রয়োজনীয় সমস্ত তথ্য ও ডাটা কম্পিউটার এবং ডিভাইসের মধ্যে সহজে পাঠানো যায়। রাউটার এবং সুইচ হল নেটওয়ার্কের পাইপলাইন।

রাউটার হল অন্য একটি নেটওয়ার্কের সাথে পরিচয় প্রদান এবং ফাইরওয়াল প্রদান করে। এর মাধ্যমে একটি নেটওয়ার্ক থেকে অন্য একটি নেটওয়ার্কে কম্পিউটার সংযুক্ত করে দেওয়া যায়। সুইচ একটি নেটওয়ার্কের ভিতরে ডিভাইসগুলি সংযুক্ত করে দেওয়া যায় যাতে দুটি কম্পিউটার একে অপরকে পাঠাতে পারে। হাব হল একটি কাংখ্যাবিশিষ্ট নেটওয়ার্কিং ডিভাইস যা কম্পিউটার এবং অন্য নেটওয়ার্কিং ডিভাইসকে সংযুক্ত করে দেয়।

এটি ডেটা সিগনাল পাঠানোর জন্য একটি শর্ত তৈরি করে। ব্রিজ হল একটি নেটওয়ার্কিং ডিভাইস যা দুটি স্বতন্ত্র নেটওয়ার্ক সংযুক্ত করতে পারে। গেটওয়ে একটি নেটওয়ার্কিং ডিভাইস যা একটি কম্পিউটার অথবা নেটওয়ার্কের সাথে ইন্টারনেট সংযোগ প্রদান করে। আর ফাইরওয়াল হল একটি সিকিউরিটি ডিভাইস যা কম্পিউটার এবং নেটওয়ার্কের সাথে ইন্টারনেট সংযুক্ত করে রাখে।

এইভাবে নেটওয়ার্কিং ডিভাইস গুলি নেটওয়ার্কে সংযুক্তি প্রদান করে কম্পিউটার ও ডিভাইসগুলি সার্ভিস প্রদান করে এবং নেটওয়ার্কিং এর পারফরমেন্স বাড়িয়ে তোলে।

নেটওয়ার্কিং ডিভাইসের ধরন

নেটওয়ার্কিং ডিভাইস হল কম্পিউটার নেটওয়ার্কে ব্যবহৃত ডিভাইস যা একটি নেটওয়ার্ক সংযোগ দিতে ব্যবহৃত হয়। নেটওয়ার্কিং ডিভাইসগুলোকে গুরুত্বপূর্ণভাবে বিভক্ত করা যায় তাদের ব্যবহারের উদ্দেশ্য অনুযায়ী। কম্পিউটার নেটওয়ার্কিং সংক্রান্ত কাজের জন্য ব্যবহৃত হওয়া নেটওয়ার্কিং ডিভাইসগুলো মধ্যে কম্পিউটার সম্পদ হতে পারে যেমন স্বিচ, রাউটার ইত্যাদি। এই উদাহরণগুলো প্রতিটি ডিভাইসকে আলাদা করে বিভক্ত করে থাকে।

স্বিচ হল কম্পিউটার নেটওয়ার্ক ডিভাইস যা কম্পিউটারের মধ্যে ধোঁয়ার উপায়ের মাধ্যমে নেটওয়ার্কের সংযোগ প্রদান করে। আর রাউটার হল একটি নেটওয়ার্ক ডিভাইস যা ডাটা প্যাকেটের সাথে সম্পর্কিত নেটওয়ার্কের মধ্য মেধেস সংযুক্ত করে ও মধ্যতম রুটিং প্রক্রিয়া চালু করে। একক ডিভাইসের মাধ্যমে উদাহরণ স্বিচের ক্ষেত্রে একটি বা একাধিক নেটওয়ার্কের সংযোগ প্রদান করা হয়। ভার্চুয়ালি ব্যবহারিত ডিভাইসও ইংরেজিতে বানানোর চেষ্টা করা হয়েছে যেন একটি রাউটার ভার্চুয়ালি হিসাবে কাজ করতে পারে।

রাউটার কি?

রাউটার হল একটি ডিভাইস যা ডাটা প্যাকেটগুলি ইন্টারনেট থেকে মোবাইল, ল্যাপটপ, ট্যাবলেট এবং শেষতঃ হোম থিএটার সিস্টেম সহ অন্যান্য উপকরণের মধ্যে বিতরণ করে। একজন ব্যবহারকারী তাদের নেটওয়ার্ক প্রবেশ করে সংযোগ স্থাপন করতে পারেন এবং কোনও ডিভাইস থেকে ডাটা পাঠাতে পারেন। রাউটার একটি গেটওয়ে হিসাবে কাজ করে, যা বিভিন্ন ডিভাইসের মধ্যে যোগাযোগ রক্ষণাবেক্ষণ করে। এটি সহজেই ব্যবহার করা যায় এবং নেটওয়ার্ক সংযোগগুলির ব্যাপারে বৃদ্ধি করে।

সমস্ত বাজারের রাউটার একটি একমাত্র লগইন প্রণালী সহ যে কেউ তাদের নেটওয়ার্কে সংযুক্ত হতে পারে। এবং জরুরি ক্ষেত্রে টেকনোলজি পেশাদারদের জন্য একটি প্রাসঙ্গিক উপকরণ হিসাবে রয়েছে।

রাউটারের কাজ

রাউটার হল এমন একটি ডিভাইস যা ইন্টারনেট কানেকশন প্রদান করে। এটি নেটওয়ার্ক সার্ভিসের ভেতরে কাজ করে এবং একটি নেটওয়ার্ক থেকে অন্য একটি নেটওয়ার্কের মাধ্যমে ডেটা ট্রান্সফার করতে পারে। আধুনিক রাউটারগুলি খুবই সহজে কনফিগার করা যায় এবং বিভিন্ন ধরনের সেটিং সংরক্ষণ করা যায় যা সমস্ত ডিভাইসের মধ্যে নেটওয়ার্ক সেটিং মধ্যে সিংক্রোনাইজ করে। রাউটারটি একটি নেটওয়ার্ক কনফিগার করা থাকলে, এটি নেটওয়ার্কের মধ্যে থাকা সমস্ত ডিভাইসের ছবি লোড করতে পারে এবং সেই ডিভাইসগুলি ইন্টারনেট এক্সেস করতে পারে।

এছাড়াও, রাউটার নেটওয়ার্ক এক্সেস কন্ট্রোল প্রদান করতে পারে, এটি এমনকি নেটওয়ার্ক ব্যবহার পরিচালনার সমস্ত জনপ্রিয় পরিচালকদের জন্যও দক্ষ হওয়ার জন্য একটি সমাধান হিসাবে কাজ করে।

রাউটারের ধরন

আপনি যদি ইন্টারনেট ব্যবহার করেন, তবে নিশ্চই রাউটার একটি সমস্যা নয়। রাউটার হল এমন একটি ডিভাইস যা আপনার ইন্টারনেট সংযোগকে বিভিন্ন ডিভাইস এর সাথে ভাগ করে। এই ডিভাইস যা আপনার ইন্টারনেট কানেকশন নির্ভর করে তাকে বলা হয় ISP বা ইন্টারনেট সার্ভিস প্রদানকারী। রাউটারগুলি প্রকার প্রকারের হয় এবং একটি নির্দিষ্ট কাজের জন্য ব্যবহার করা হয়।

See also  নেটওয়ার্ক (Network) কি? নেটওয়ার্কের প্রকারভেদ, প্রয়োজনীয়তা ও অসুবিধা

উদাহরণস্বরূপ, হোম রাউটার একটি রাউটার যা বাসার সেটআপের জন্য ব্যবহার করা হয়। সেইসমস্যা এবং উদ্দেশ্য অনুযায়ী, রাউটারগুলি যেভাবে বিভক্ত হয় তার উল্লেখ যথাযথ হবে সেটার ক্ষেত্রে দেখা যাবে। আমার ফলস্বরূপ এই আর্টিকেল আপনাকে অনেক স্পষ্টতা দিবে যেখানে আপনিও কোনও সমস্যার সম্মুখীন থাকবেন না।

মডেম কি?

মডেম হল একধরণের নেটওয়ার্কিং ডিভাইস যা কম্পিউটার এবং ইন্টারনেটের মধ্যে তথ্য সংযোগ সচল করে। এটি লক্ষ্য করে নেওয়া যায় যে কম্পিউটার ও ইন্টারনেটের মধ্যে তথ্য সংযোগ স্থাপন করার জন্য দুটি প্রমুখ উপকরণ ব্যবহার করা হয় – একটি মডেম এবং একটি রাউটার। মডেম একধরণের ডিভাইস যা ইন্টারনেট সংযোগ এবং প্রবেশ পাবলিক লাইন থেকে সম্পাদন করে কম্পিউটারের সাথে তথ্য পাঠানোর জন্য ব্যবহৃত হয়। রাউটার হল একধরণের নেটওয়ার্কিং উপকরণ যা প্যাকেট ডাটা পাঠানো এবং গ্রাহক উপকরণে ট্রাফিক বিভাজন করে।

মডেম এবং রাউটার একসাথে ব্যবহার করে একটি হোম নেটওয়ার্ক তৈরি করা যায়, যা প্রযুক্তিগত লক্ষ্য নির্ভর করে বিভিন্ন প্রযুক্তি ব্যবহৃত হতে পারে।

মডেম এর কাজ

মডেম হল এমন একটি যন্ত্র, যা ডিজিটাল সংকেতে পাঠানো ডেটা সংযোগ গড়ে তোলে। মডেম একটি সংযোগ পাঠাক হিসেবে কাজ করে, যা আপনার কম্পিউটার বা আইসিপি সংযোগমাধ্যম (ইথারনেট ক্যাবল, DSL বা ফোন লাইন) থেকে ইনটারনেটের সাথে সংযোগ প্রদান করে। মডেম ডিজিটাল সংকেত রূপে পাঠানোর জন্য শক্তিশালী ফ্রেমওয়ার্কগুলি ব্যবহার করে, যা ডেটা কোডিং ও ডিকোডিংয়ে কাজ করে এবং ইথারনেট ক্যাবল বা DSL লাইনে কাজ করে। মডেম সম্প্রতি হল ফাইবার অপ্টিক কেবল (এফওএ) ব্যবহারে বিশেষজ্ঞ কাজের কাজ করে।

আপনার ইনটারনেট সংযোগ এর জন্য মডেম এর প্রয়োজন একটি গুরুত্বপূর্ণ ব্যবহারি সরঞ্জাম এবং কম্পিউটারটি স্বয়ং ইন্টারনেটে সংযোগ প্রদান করতে পারবে না। মডেম এর ব্যবহার সম্পর্কে আরও জানতে হলে আপনি পুরোপুরি এর কাজ ও ব্যবস্থাপনা জিজ্ঞাসা করতে পারেন।

মডেমের ধরন

মডেম হল মোবাইলে ইন্টারনেট সংযোগ দেওয়ার জন্য ব্যবহৃত একটি উপকরণ। গুরুত্বপূর্ণ কাজের জন্য একটি মডেম প্রয়োজন হয়, যেমন ওয়েব ব্রাউজিং, ফাইল ডাউনলোড করা এবং গ্রাফিক্স, ভিডিও এবং অডিও ডেটা স্ট্রিম করা। একটি মডেম ব্যবহার করে ইন্টারনেটের চলমান ফরম্যাটে ডেটা ট্রান্সফার করা হয় যা ইস্পের সাথে একত্রিত হতে সাহায্য করে। বিভিন্ন প্রকারের মডেম রয়েছে যেমন DSl মডেম, কেবল মডেম, ডিএসএল মডেম সহ।

হালকা ব্যবহারকারীরা কম ব্যান্ডউইথ ব্যবহার করে ইন্টারনেট ব্রাউজ করতে পারে কিন্তু যদি আপনি গুরুত্বপূর্ণ সংযোগ এবং একসাথে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে সক্ষম হতে চান, তবে একটি ভাল মডেম প্রয়োজন।

সোইচ কি?

সোইচ বা সংযোগবিধি হল দুটি যোগাযোগ পদ্ধতি বা যথাযথ প্রোটোকলের সমন্বয়ে তৈরি একটি শক্তি স্যুইচ বা যন্ত্র। সকল যন্ত্র পাঠাগুলো পদার্থের সংযোগ স্থাপন বা বিচ্ছিন্নতার স্থান পরিবর্তন করার জন্য ব্যবহৃত হয়। সোইচ পাঠাগুলো মূলত দুটি ছেলে-মেয়ে প্রতিষ্ঠিত করা হয়। প্রতিটি ছেলে বা মেয়েকে উত্তম সংযোগ যন্ত্র হিসেবে ব্যবহার করা হয়।

জোস বড় সোইচগুলি পৌঁছে যাওয়ার মাধ্যমে আমরা বিভিন্ন সংস্থা বা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে বিভিন্ন সংযোগবিধি তৈরি করতে পারি। প্রতিষ্ঠানের স্থায়ী এবং গৈরস্থায়ী সকল সিস্টেমে সোইচ ব্যবহার করে তাদের পদার্থিক ব্যবস্থাকে পরিচালনা করা হয়। এর মাধ্যমে সকল প্রক্রিয়ায় সহজেই সংযোগ ও বিচ্ছিন্নতা স্থাপিত করা হয়।

সোইচ এর কাজ

সোইচ একটি ইলেকট্রিক ডিভাইস যা দুটি বিভিন্ন স্থান মধ্যে বিদ্যুৎ চালিত সংযোজন বা বিচ্ছিন্ন করে দেয়। সোইচটি একটি মেকানিক্যাল বা এলেকট্রিক্যাল অপারেশন সম্পাদন করে একটি সংযোজনের সাথে দুটি টার্মিনাল বা স্বিচ করে সংযোজন বা বিচ্ছিন্ন করে। এটি এসেছে নিউম্যাটিক, আইটি, গ্যাস, জিপিও এবং ডিজিটাল প্রযুক্তিতে। একটি সংযোজনের সাথে যখন সোজা লাইনে সংযুক্ত থাকে তখন, এটি বিদ্যুৎ পাঠকের জন্য পরিস্কার এবং সংরক্ষনশীল একটি পদ্ধতি হিসাবে কাজ করে।

এটি একলা ব্যবহার করা হতে পারে অথবা সংযোজনের সাথে সমন্বিত হতে পারে যা উপভোগ্য এবং স্বচ্ছ এক বিদ্যুৎ সরবরাহের জন্য একটি ভাল উপাদান। উল্লেখ্য, এই সোইচ দ্বারা বিদ্যুৎ সুরক্ষিত থাকে এবং ওভারলোডিং আদির জন্য কোম্পানি সিদ্ধান্ত নেয়।

সোইচের ধরন

জ্যামিতি বা ইলেকট্রনিক্স ছাত্রদের জন্য সোইচ হলো একটি প্রায় স্থির দুটি মেটাল স্ট্রাকচার যা একবিংশ শতাব্দীর উপর নির্ভর করে কাজ করে। সোইচ ব্যবহার করে বিভিন্ন উপাদানের মধ্যে বিদ্যুত পাঠিয়ে দেওয়া হয়। এই সোইচে দুটি মেটাল প্লেট রয়েছে এবং সেগুলি অপর গ্রিডের সাথে সংযুক্ত। সোইচের ভিতর বিশেষ ধরনের বিদ্যুতের পাঠক ফিল্ম লাগানো থাকে যাতে সোইচ খোলা বা বন্ধ হয়।

এই ফিল্মটি আবশ্যিক কারণে সোইচ যা প্রায় স্থির হয়ে থাকে সেটি নিম্নলিখিত প্রকারের সোইচ হিসেবে উপযোগী হয় – মেকানিক্যাল সোইচ সোটেড সোইচ কাপ্যাসিটরি সোইচ ইনডাক্টিভ সোইচ। সোইচ গুরুত্বপূর্ণ উপকরণ এবং বিষয়টি জানা খুব জরুরি যদি আপনি একজন ইলেকট্রনিক্স বা জ্যামিতি শিক্ষার্থী হন। সোইচের বিভিন্ন ধরণ ব্যবহার করে আপনি বিভিন্ন উপাদানের মধ্যে প্রবাহ নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন।

See also  জিএসএম (GSM) এবং সিডিএমএ (CDMA) প্রযুক্তি কি?

এক্সটেন্ডার কি?

এক্সটেন্ডার একটি উপকরণ যা কম্পিউটার বা ল্যাপটপের থেকে বিভিন্ন উপকরণ চালানো যায়। সাধারণত ল্যাপটপগুলো একটি সিরিয়াল পোর্ট এবং দুটি ইউএসবি পোর্ট থাকে। কিন্তু যখন আপনার জরুরি হয় বিভিন্ন পোর্টে আপনার ডিভাইস লাগানো তখন সেটার পর্যবেক্ষণ করা হয়ে সাধারণত সমস্যা হয়। তখন এক্সটেন্ডার মাধ্যমে একই সঙ্গে একাধিক ডিভাইস চালানো যায় এবং আপনি সমস্যাহীন কাজ করতে পারেন।

সাধারণত প্রফেশনাল কাজে এই এক্সটেন্ডারগুলো ব্যবহৃত হয়।

এক্সটেন্ডারের কাজ

এক্সটেন্ডার হল এমন একটি যন্ত্রাংশ যা একটি প্রক্ষেপক বা গুষ্ঠি এর উপর যুক্ত করা হয়, যাতে প্রক্ষেপকের লম্বা বা পরিমান বাড়তে পারে। এক্সটেন্ডার ব্যবহার করে আমরা প্রায় সবকিছুর লম্বা বা পরিমাণ বাড়াতে পারি। এক্সটেন্ডার স্প্রিং, লক্স, কাজি বা হাইড্রোলিক তৈরি হতে পারে। সাধারণত বিভিন্ন লম্বা ও পরিমাণের এক্সটেন্ডার উপস্থাপন করা হয় যা ব্যবহারকারী খুব সহজে ব্যবহার করতে পারেন।

প্রায় সব প্রোফেশনাল ফটোগ্রাফার, কৃষি কর্মী, গড়ানি বিল্ডার এবং বিভিন্ন মেশিনারি এই এক্সটেন্ডার ব্যবহার করে থাকেন। তবে এটি ব্যবহার করার আগে এটি সঠিকভাবে জানতে হবে যেনো পদক্ষেপগুলি সঠিকভাবে নেয়া যায়।

এক্সটেন্ডারের ধরন

এক্সটেন্ডার হলো একটি ছোট্ট উপকরণ যা কোন লার্জ উপকরণ বা একটি প্রসেসারের সাথে সমন্বয় করে ব্যবহার করা যেতে পারে। এটি প্রধানতঃ উভয় অংশের মধ্যে যোগ করার জন্য ব্যবহৃত হয়। কোন উপকরণে যখন কোন সমস্যার সম্মুখীন হয় এবং তার উপকরণের সাথে যোগকরতে না পারেন, এই সমস্যাটি সমাধান করার জন্য এক্সটেন্ডার একটি দরকারি উপকরণ হতে পারে। এক্সটেন্ডার দুই প্রকারের হতে পারে।

একটি ডেটা এক্সটেন্ডার, যা মুল্যবান ডেটা সংগ্রহ করে এবং সংরক্ষণ করে তা পরবর্তী ব্যবহারের জন্য। একটি বিস্তারিত এক্সটেন্ডার, যা শব্দ, ছবি এবং ভিডিও দেখাতে পারে। একটি এক্সটেন্ডার ব্যবহার করা খুব সহজ এবং মূল্যবান সম্পদের সংরক্ষণ করতে সাহায্য করে।

সামগ্রিক অবকাঠামো

সামগ্রিক অবকাঠামো হল এমন একটি বিষয় যা অথরিটেটিভ ভিত্তিতে একটি প্রতিবেদন, একটি ভুমিকা, একটি আলোচনা বা একটি নির্দেশিকা চর্চা করা হয়। প্রতিটি কাজের জন্য একটি সামগ্রিক অবকাঠামো খুবই জরুরি যা কাজটি ভাল ভাবে সম্পাদনের সময় কাজে লক্ষ্য করা হয়ে থাকে। সামগ্রিকভাবে একটি কাজ সম্পাদনের আগে সম্পাদনকারী চিন্তা করবেন যে কোনও মুহুর্তে কি করতে হবে এবং কাজটি কি মানে রাখবে। এছাড়াও, সম্পাদনকারীরা একটি সামগ্রিক অবকাঠামো তৈরি করে কাজের নিয়ন্ত্রণ এবং পরবর্তী উন্নয়ন করতে সহায়তা করে।

সামগ্রিক অবকাঠামো থেকে অব্যাহত রয়েছে ক্ষমতা, সঠিকতা এবং পারদর্শিতা, যা কাজের প্রভাবকারী তথ্যগুলি নিয়ন্ত্রণ করে। এটি কাজের একটি স্থাপনার মতো এবং একটি অত্যন্ত জরুরি উপকরণ।

নেটওয়ার্কিং ডিভাইস সম্পর্কে জানা গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

জগতে বিভিন্ন ধরণের নেটওয়ার্কিং ডিভাইস ব্যবহৃত হচ্ছে যা কম্পিউটার নেটওয়ার্কের অংশ হিসেবে কাজ করে। সিস্টেম এডমিনিস্ট্রেটরদের নেটওয়ার্কিং ডিভাইস এর সাথে ভালো করে পরিচয় থাকা প্রয়োজন। সকল কোম্পানির জন্য নেটওয়ার্কিং ডিভাইস খুবই গুরুত্বপূর্ণ যার মধ্যে প্রধানতই রাউটার, সুইচ, ফায়ারওয়াল এবং মডেম রয়েছে। রাউটার একটি নেটওয়ার্কিং ডিভাইস যা একটি নেটওয়ার্ক থেকে অন্য একটি নেটওয়ার্কে তথা ইন্টারনেটে সংযুক্ত করে থাকে।

সুইচ একটি নেটওয়ার্কিং ডিভাইস যা প্রতিটি পোর্ট দ্বারা কন্ডেক্টড ডিভাইসে ট্রাফিক পাঠায়। ফায়ারওয়াল একটি নেটওয়ার্কিং ডিভাইস যা একটি নেটওয়ার্ক থেকে আরেকটি নেটওয়ার্ক বা ডিভাইস এবং ইন্টারনেটের মধ্যেও প্রতিষ্ঠিত সংযোগ ব্যাবহার করে দুইটি নেটওয়ার্ক বা ডিভাইস মধ্যে তথ্যের গতি নিয়ন্ত্রণ করে। মডেম নেটওয়ার্কের মাধ্যমে ইন্টারনেটের সাথে সংযুক্ত থাকে। নেটওয়ার্কিং ডিভাইস এর বিভিন্ন ধরণের প্রয়োজনীয়তা বোঝে আপনি একটি বিশ্বস্ত নেটওয়ার্ক কনফিগার করতে পারেন যা সুরক্ষিত এবং একটি ডিপেন্ডেবল নেটওয়ার্ক প্রদান করতে ক্ষমতা রাখবে।

নেটওয়ার্কিং ডিভাইস সম্পর্কে ভুল ধারণা এবং ভুল ব্যবহার

নেটওয়ার্কিং ডিভাইস মূলত কম্পিউটার নেটওয়ার্ক এবং ইন্টারনেট সংযোগের জন্য ব্যবহৃত হয়। এই ডিভাইসগুলো আসলে এমন সাধারণ রকম ক্যাবল বা বিভিন্ন প্রকারের ফাংশনালিটি বিশিষ্ট ডিভাইস। একটি কম্পিউটার নেটওয়ার্কের ক্ষেত্রে, সুইচ, রাউটার, হাব এবং ফায়ারওয়াল এমনকি প্রিন্টার পর্যায়ের একটি ডিভাইস হতে পারে। অনেকে নেটওয়ার্কিং ডিভাইসের শব্দ শুনে আনকোটি অথবা রাউটারের কথা ভাবে তবে কম্পিউটার সংযোগের জন্য অনেক কম ফাংশন সম্পন্ন ডিভাইসও আছে।

তাই নেটওয়ার্কিং ডিভাইস ব্যবহার করার আগে আপনার প্রয়োজনগুলি পরিস্কার করতে হবে। এতে বেশ কিছু টাকার পাঁচ ডিভাইস কিনে নিজের নেটওয়ার্ক তৈরি করা যেতে পারে।

নেটওয়ার্কিং ডিভাইস কিনুন কিংবা ব্যবহার করুন এর পূর্বে বিভিন্ন বিষয়ে ভালো খোঁজ করুন

সঠিক নেটওয়ার্কিং ডিভাইস নির্বাচন প্রয়োজন সেই কারণে এর পূর্বে আপনাকে বিভিন্ন প্রশ্নের সমাধান খুঁজতে হবে। উদাহরণস্বরূপ, আপনি কি একটি কার্যালয় বা বিদেশে ভ্রমণ করা যাবে এমন একটি নেটওয়ার্কিং ডিভাইস কিনছেন? আপনার কাজের প্রকার বা কম্পিউটার সিস্টেমের ক্ষমতা অনুসারে নেটওয়ার্কিং ডিভাইস নির্বাচন করতে হবে। লার্জ সাইজের কার্যালয়ের জন্য আপনি সীমিত ডিভাইসের সাথে সম্পর্কভিত্তিক সংখ্যার নেটওয়ার্কিং ডিভাইস দিয়ে গিয়ে থাকতে পারেন সেই শেষ নির্বাচনটি একটি গুরুত্বপূর্ণ নির্ণয়। আপনি যেভাবে নেটওয়ার্কিং ডিভাইস চলাচল করছেন সেই প্রক্রিয়াটি শেষ না হওয়া পর্যন্ত আপনাকে একটি সঠিক ডিভাইসটি নেবার জন্য সন্ধান করতে থাকতে হবে।

Leave a Comment